Infinix HOT 10T স্মার্টফোনটি কেনিয়াতে হল লঞ্চ

কেনিয়াতে Infinix HOT 10T স্মার্টফোন হয়েছে লঞ্চ
Infinix HOT 10T স্মার্টফোনটিকে সংস্থাটি HOT সিরিজের সর্বশেষ সংস্করণ হিসাবে কেনিয়াতে লঞ্চ করে দেওয়া হয়েছে। এর আগে সংস্থাটি Infinix HOT 10S, Infinix HOT 10S NFC, Infinix Hot 10 Play, Infinix Hot 10 abong Infinix Hot 10 Lite নামের স্মার্টফোন গুলো বাজারে লঞ্চ করেছিল। Infinix HOT 10T ফোনের সম্পর্কে কথা বলি যদি, এই ফোনের অনেকগুলি স্পেসিফিকেশন Infinix HOT 10S এবং Infinix HOT 10S NFC স্মার্টফোনের মতো।  তবে, আমরা যদি পার্থক্যের কথা বলি তবে লেটেস্ট ফোনটিতে প্রসেসর, র‌্যাম, ব্যাটারি এবং চার্জিং ক্ষমতা আলাদা রয়েছে।
 

Infinix HOT 10T ফোনের মূল্য এবং উপলব্ধতা

Infinix HOT 10T ফোনটি দুটি কনফিগারেশনের সাথে কেনিয়াতে লঞ্চ হয়েছে। যার মধ্যে 4 জিবি র‌্যাম + 64 জিবি স্টোরেজ ভেরিয়েন্টের মূল্য হচ্ছে 15,499 Ksh (যা প্রায় 10,729 টাকা)। আর এই ফোনের 4 জিবি র‌্যাম + 128 জিবি স্টোরেজ ভেরিয়েন্টের মূল্য হল 17,499 Ksh (যা প্রায় 12,052 টাকা)। এছাড়া এই ফোনটিকে চারটি রঙের বিকল্পে বিক্রয়ের জন্য উপলব্ধ করা হয়েছে, সেগুলি হল 7 ডিগ্রি বেগুনি, 95 ডিগ্রি কালো, মোরান্দি সবুজ এবং হার্ট অফ ওশান রঙ। কেনিয়ায়, এই ফোনটিকে গ্রাহকরা অনলাইন এবং অফলাইনের মাধ্যমে কিনতে পারবেন।
 

Infinix HOT 10T ফোনের স্পেসিফিকেশন

ডুয়াল ন্যানো সিম সাপোর্ট Infinix HOT 10T স্মার্টফোনটি অ্যান্ড্রয়েড 11 এর উপর ভিত্তিক এক্সওএস 7.6 এ কাজ করে। এতে 6.82 ইঞ্চির এইচডি + 720x1,640 পিক্সেলের আইপিএস ডিসপ্লে রয়েছে। যা 90Hz রিফ্রেশ রেট, 180Hz টাচ স্যাম্পলিং রেট এবং 20.5:9 এর অ্যাসপেক্ট রেশিওর সাথে আসে। এছাড়া এই ফোনটিতে ম্যাডিয়েটেক হেলিও জি70 প্রসেসর ব্যাবহার করা হয়েছে, যার সাথে 4 জিবি র‌্যাম এবং 128 জিবি স্টোরেজ উপস্থিত রয়েছে। 

ফটোগ্রাফির জন্য Infinix HOT 10T ফোনটিতে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। যার মধ্যে প্রথম ক্যামেরা 48 মেগাপিক্সেল সেন্সর, দ্বিতীয়টি 2 মেগাপিক্সেল সেন্সর এবং তৃতীয়টি হল এআই সেন্সর। অন্যদিকে সেলফি এবং ভিডিও কলিংয়ের জন্য এই ফোনটির সামনে একটি 8 মেগাপিক্সেল সেন্সরের সেলফি ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। পাওয়ার ব্যাকআপ এর বিষয়ে কথা বলি যদি Infinix HOT 10T ফোনটিতে 5 ওয়াট এর চার্জিং সমর্থন সহ 5000 এমএএইচ এর ব্যাটারি রয়েছে।

এছাড়া এই ফোনটিতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এবং ফেইস আনলক সমর্থন দেওয়া হয়েছে। এই স্মার্টফোনটিতে একটি ডার-লিঙ্ক গেইম বুস্টার বৈশিষ্ট্যও রয়েছে। কানেক্টিভিটি ফিচারের কথা বলি যদি এই স্মার্টফোনটিতে 4জি, ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াইফাই, ব্লুটুথ 5.0 এবং জিপিএস সমর্থন রয়েছে। এই ছাড়াও ফোনে রিয়ার মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, অ্যাক্সিলোমিটার, প্রক্সিমিটি সেন্সর, কম্পাস, এম্বিয়েন্ট লাইট সেন্সর, 3.5 মিলিমিটারের হেডফোন জ্যাক এবং মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট অন্তর্ভূক্ত রয়েছে।

Post a Comment

0 Comments